Enquire NowCall Back Whatsapp Lab report/login
ডায়াবেটিস কী, জেনে নিন এর লক্ষণ ও প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থাসহ সম্পূর্ণ তথ্য

Home > Blogs > ডায়াবেটিস কী, জেনে নিন এর লক্ষণ ও প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থাসহ সম্পূর্ণ তথ্য

ডায়াবেটিস কী, জেনে নিন এর লক্ষণ ও প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থাসহ সম্পূর্ণ তথ্য

Endocrinology | by Dr. Kalyan Kumar Gangopadhyay | Published on 18/04/2023



ডায়াবেটিসের পরিচিতি

আমাদের মানব স্বাস্থ্য সম্পর্কে চিকিৎসা বিজ্ঞানে দেখা যায় প্রায় প্রত্যেকটি মানুষের দেহে কিছু না কিছু রোগ থাকে। তবে আজকালকার দিনে মানুষের জনজীবনে যে রোগটি সবচেয়ে বেশি দেখা যায় সেটি হলো ডায়াবেটিস। প্রতি ১০ জনের মধ্যে আটজনের মধ্যে এই রোগ দেখা যায়। ডায়াবেটিস-এর অপর নাম হচ্ছে মধুমেহ। এই মধুমেহ রোগটি সর্বত্রই দেখা যায়। খুব কম মানুষ আছেন যারা এই রোগে আক্রান্ত হন না। তবে এই রোগটি মানুষের জীবনে একেক রকমভাবে প্রভাব ফেলে থাকে এবং নানা সমস্যা তৈরি হতে পারে। তবে আমাদের আজকের বিষয় হলো ডায়াবেটিস একটি মানুষের ফার্টিলিটিতে বা উর্বরতায় কতটা প্রভাব ফেলে এবং সেক্ষেত্রে একটি মহিলার ফার্টিলিটির ক্ষেত্রে কতটা প্রভাব ফেলে আজ আমরা সেটা নিয়ে আলোচনা করব।

যদিও ডায়াবেটিসের জন্য পুরুষ মানুষের ফার্টিলিটির খুব একটা সমস্যা দেখা যায় না তবুও পুরুষ বন্ধ্যাত্বের সঙ্গে সম্পর্কিত কিছু শর্ত থেকেই যায়। যেগুলির সম্ভাবনা প্রায় অনেকটাই বেশি বিশেষ করে ডায়াবেটিক মানুষের যাদের ডায়াবেটিস খুব ভালোভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হয় না বা তাদের ডায়াবেটিস বহু বছর ধরে তাদের শরীরে রয়েছে। বেশ কয়েকটি সমস্যা এই ডায়াবেটিসের কারণে হতে পারে এর মধ্যে যেমন রয়েছে ইরেকটাইল ডিসফাংশন প্রতিবন্ধী বীর্যপাত, বিপরীতমুখী বীর্যপাত ও শুক্রাণুর গুণমান হ্রাস। হাইপোগোনাইডিজান হরমোনের ক্ষরণ ইরেকটাইল ডিসফাংশন ডায়াবেটিসের সঙ্গে যুক্ত একটি সাধারণ সমস্যা, যা ইরেকশান পেতে বা বজায় রাখতে অসুবিধা সৃষ্টি করে থাকে এটি নিউরোপেথি বা নার্ভ ড্যামেজ এবং নিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিস বা দীর্ঘস্থায়ী ডায়াবেটিসের ফলে রক্ত সঞ্চালন হ্রাসের কারণে ঘটে থাকে, রক্তে গ্লুকোজের উচ্চমাত্রা রক্তচাপ এবং কোলেস্টেরলের কারণেও ঘটে থাকে।

ডায়বেটিস বা ডায়বেটিসের হার তরুণদের মধ্যে বাড়ছে। তাই ফার্টিলিটির উপর কোন ক্ষতিকর প্রভাব একটি বিশাল ভাবে স্বাস্থ্য উদ্যোগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ইতিমধ্যে জানা গেছে যে ডায়াবেটিক পুরুষের উচ্চ রক্ত শর্করা উর্বরতা হ্রাস করতে পারে। একটি ফার্টিলিটি ক্লিনিকে যোগদানকারী পুরুষদের একটি সাম্প্রতিক গবেষণায় আরও দেখা গেছে যে প্রি-ডায়াবেটিকদের মধ্যে অস্বাভাবিক শুক্রাণুহীনতার প্রবণতা আছে।

মহিলাদের ক্ষেত্রে ফার্টিলিটির মাত্রাঃ-

ম্যানার্কির (প্রথম মাসিক চক্র) বিলম্ব থেকে শুরু করে উর্বরতা হ্রাস অবধি ডায়াবেটিস অনেক শারীরিক কার্যকলাপকে প্রভাবিত করে। স্থূলতা, ওজন কম হওয়া, ডায়াবেটিকের সঙ্গে যুক্ত থাকা পিসিওস (PCOS) এবং একটি অটোডিজিজ থাকা সহ বেশ কয়েকটি কারণ এর ভূমিকা পালন করতে পারে। ডায়াবেটিক অনেক মহিলা গর্ভধারণ করতে সক্ষম বিশেষ করে যদি ডায়াবেটিসটি সেক্ষেত্রে ভালোভাবে নিয়ন্ত্রণ করা হয় এবং শরীরে একটি স্বাস্থ্যকর ওজন বজায় থাকে এক্ষেত্রে কিছু শর্তাবলী আছে। সেই শর্তাবলী হলো:

  • প্রথমত পলিসিস্টিক ওভার সিনড্রোম পিসিওএস(PCOS)
  • অলি গোমেন অরিয়াড সেকেন্ডারি এমোনুরিয়াম অনুপস্থিত। 
  • পিরিয়ড অকাল সময়ে মেনোপোজ অর্থাৎ অকাল ডিম্বশয়ের ব্যর্থতা
  • ক্যান্সার বা জরায়ু ক্যান্সার 
  • মাইক্রোভাসকুলার এবং কার্ডিওভাসকুলার জটিলতা

মহিলাদের ক্ষেত্রে পিসিওএস একটি বড় ধরনের কারণ হলো টাইপ-1 ডায়াবেটিস। যা অকালে মেনোপজের ও মাসিকের সমস্যাগুলির একটি বড় ঝুঁকির সঙ্গে যুক্ত থাকে। সেক্ষেত্রে শুধুমাত্র টাইপ-১ ডায়াবেটিস নয়, টাইপ-2 ডায়াবেটিস এর কারণ হতে পারে। এন্ডোমেটরিয়াল ক্যান্সার যা টাইপ-2 ডায়াবেটিস এবং পিসিওএস (PCOS) মহিলাদের মধ্যে বেশিরভাগ দেখা যায় যদি ক্যান্সারটি আগে থেকে রোগ নির্ণয়ের অভাবে চিকিৎসা না করা হয়। ২০০৭ সালের গবেষণায় দেখা গেছে যে টাইপ-1 ডায়াবেটিসে আক্রান্ত মহিল ডায়াবেটিসের জটিলতা সহ মাইক্রোভাসকুলার নিউরোপ্যাথি, রেটিনোপ্যাথি এবং নেত্রপ্যাথি এবং কার্ডিওভাসকুলার জটিলতা সহ ফার্টিলিটির হার অনেক কম অনুভব করছেন। ফার্টিলিটির অভাবের সম্ভাবনা বেশি বিশেষ করে যদি গর্ভবস্থার আগে বা সময়কালে ডায়াবেটিস ভালোভাবে নিয়ন্ত্রণ করা না হয় তবে আপনার গর্ভধারণের ইচ্ছা করার আগে রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা ভালোভাবে নিয়ন্ত্রণ করার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা।

 এনএইচএস জানিয়েছে যে, জনসংখ্যার মধ্যে প্রায় সাত জনের মধ্যে একজন দম্পতি প্রথম বছরে গর্ভধারণ করতে অসুবিধা অনুভব করেন যেহেতু ডায়াবেটিস অতিরিক্ত সমস্যার কারণ যা ফার্টিলিটিকে প্রভাবিত করে। ঝুঁকি এমন দম্পতির জন্য বেশি হতে পারে যাদের এক বা একাধিক সমস্যাযুক্ত ডায়াবেটিস আছে তাদের এক্ষেত্রে বন্ধ্যাত্ব থাকতে পারে। এটির সাধারণত চিকিৎসা করা যেতে পারে কিন্তু মনে রাখা উচিত যে চিকিৎসার কারণ এবং আপনার এলাকায় উপযুক্ত চিকিৎসা ব্যবস্থার উপর নির্ভর করে সেটি পরিবর্তিত হতে পারে। যদি বন্ধ্যাত্ব নির্ণয় করা যায় তাহলে সমস্যাটি চিকিৎসা করতে সক্ষম হওয়ার আরো ভালো সুযোগ থাকে। বন্ধ্যাত্ব উভয় অংশীদারকে প্রভাবিত করতে পারে তাই আপনি দম্পতি হিসেবে ডাক্তারের কাছে গেলে ভালো হয়। এমন অনেকগুলি শর্ত কারণ রয়েছে তাই সমস্যাটি কি হতে পারে এবং নির্দিষ্ট পরীক্ষা কি কি করা উচিত কিনা তা নির্ধারণ করতে আপনাকে আপনার বেশ কয়েকটি প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করবেন সেই ডাক্তার।

পুরুষদের ক্ষেত্রে ফার্টিলিটিঃ- 

এক্ষেত্রে ফার্টিলিটির মাত্রা জানার জন্য মহিলাদের কিছু পরীক্ষার মুখোমুখি হতে পারে প্রথমত হচ্ছে হরমোনের মাত্রা পরীক্ষা করার জন্য রক্ত পরীক্ষা করতে হবে। আল্ট্রাসাউন্ড স্ক্যান করতে হবে এবং ক্লামিডিয়া উপস্থিতির জন্য সোয়াপ পরীক্ষা করতে হবে। শুধুমাত্র মহিলাদের জন্য না পুরুষরাও কিন্তু এই পরীক্ষার অন্তর্ভুক্ত হতে হবে। পুরুষদের জন্য কিছু কিছু পরীক্ষা হতে পারে সেগুলো হচ্ছে লিঙ্গ বা অণ্ডকোষে অস্বাভাবিকতা পরীক্ষা করার জন্য একটি শারীরিক পরীক্ষা করা দরকার এবং ক্লামিডিয়া পরীক্ষা করার জন্য একটি প্রস্রাবের নমুনা পরীক্ষা করতে হবে। ক্লামিডিয়া হলো সবচেয়ে সাধারণ যৌন সংক্রমণ এবং এটি ফার্টিলিটিকে প্রভাবিত করতে পারে। বন্ধ্যাত্ব কিন্তু এক প্রকার হয় না অনেক রকম হতে পারে। একটি শিশু জন্মানর আগে বন্ধ্যাত্ব দেখা দিলে প্রাথমিক বন্ধ্যাত্ব বা পূর্ববর্তী গর্ভধারণের পরে গর্ভধারণের সমস্যা হলে সেকেন্ডারি হিসেবে শ্রেনিবদ্ধ করা যেতে পারে। ডায়াবেটিসের জন্য দায়ী ফার্টিলিটি সমস্যাগুলির পরিপ্রেক্ষিতে রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা ভালো নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে এবং স্বাস্থ্যকর শরীরের ওজন বজায় রাখার মাধ্যমে এই ঝুঁকিগুলি হ্রাস করা যেতে পারে। ফার্টিলিটির সঙ্গে কিছু সমস্যা মানসিক চাপের জন্য দায়ী করা যেতে পারে তাই এমন ব্যবস্থা নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয় যা আপনার এবং আপনার সঙ্গে চাপ অথবা স্ট্রেসের পরিমাণকে কমিয়ে দিতে পারে। 

যদিও আমেরিকান ডায়াবেটিস এসোসিয়েশনের মতে কুড়ি মিলিয়নেরও বেশি আমেরিকান ডায়াবেটিস রোগে আক্রান্ত এবং সেক্ষেত্রে চার বিলিয়নের বেশি নির্ণয় করা হয়নি। তা বলে এই অবস্থা ধরে নেওয়া হয়েছে ডায়াবেটিস একটি গুরুত্বপূর্ণ স্বাস্থ্য উদ্বেগের কারণ হয়ে উঠেছে। যার জন্য খাদ্যব্যায়াম এবং জীবন যাত্রার অভ্যাসের প্রতি সতর্ক মনোযোগ ও নিরীক্ষণ দরকার। যাই হোক, একটি অপ্রত্যাশিত উদ্বেগ বা যার সাধারণত পুরুষদের সঙ্গে ডায়াবেটিস আলোচনার সঙ্গে আসে যা তাদের ফার্টিলিটি এবং ডায়াবেটিস গর্ভধারণের চেষ্টা করার উপর প্রভাব ফেলতে পারে। ডায়াবেটিস পুরুষদের মধ্যে এমন কিছু সমস্যা তৈরি করে যা গর্ভধারণকে কঠিন করে তোলে তাহলে এবং চিকিৎসা ছাড়া সম্ভব হয়ে ওঠে না।

নিম্নমানের শুক্রানুর গুনমান এবং এর গতিশীলতার দুটি আলাদা জিনিস। গুণমান হলো একটি ডিম্বাণুকে নিষিক্ত করার জন্য শুক্রাণুর ক্ষমতা যেখানে তার গতিশীলতা শুক্রাণুর একটি ডিমের দিকে ভ্রমণ করার ক্ষমতা। যাতে এটি ডিম্বাণুকে নিষিক্ত করতে পারে। গতিশীলতা সাধারণত ডায়াবেটিস দ্বারা প্রভাবিত হয় না তবে গুণ মানটা নষ্ট হয়ে যেতে পারে সঙ্গে যুক্ত একটি সমস্যা পুরুষের শুক্রানুর ভূমিকা পালন করে থাকে। 

বর্তমানে প্রজনন বয়সে পুরুষদের মধ্যে ডায়াবেটিস মেলিটাস বাড়ছে তা সত্ত্বেও ফার্টিলিটি ক্লিনিক গুলিতে যোগদানকারী পুরুষদের মধ্যে ডায়াবেটিসের প্রাথমিক অংশ অজানা। এছাড়াও শুক্রাণুর ফার্টিলিটি সম্ভাবনার উপর ডিএম এর প্রভাব, পরীক্ষা করা গবেষণা গুলির প্রচলিত বীর্য বিশ্লেষণের মাধ্যমে সীমাবদ্ধ। ডায়াবেটিক পুরুষের বীর্যের পরিমাণ তাৎপর্যপূর্ণ এবং প্রচলিত বীর্যের পরিণতিগুলি নিয়ন্ত্রণের বিষয়গুলি উল্লেখ করে। নিয়ন্ত্রণ বিষয়ে তুলনা এবং ডায়াবেটিস বিষয়গুলির মধ্যে এনডিএনএ ফ্র্যাগমেন্টেশন এবং এন টি ডি এন মুছে ফেলার একটা বিষয় থাকে

ডায়াবেটিস বর্জিত শুক্রাণুর পারমাণবিক এবং এম টি ডি এন এ ক্ষতির সঙ্গে যুক্ত তাই পুরুষদের প্রয়োজনীয় ক্ষমতা ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে। 

আজকাল বেশিরভাগ লোকই ডায়াবেটিসে আক্রান্ত। রোগীদের বিশাল সংখ্যাগরিষ্ঠ বছর আগে নির্ণয় করা এই ধরনের ডায়াবেটিস ইউরোপের শিশুদের প্রতি 3% হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে শৈশবকালে নির্ণয় করা হচ্ছে পরবর্তী ১০ বছরে এর প্রকোপ ৫০ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে। ফল স্বরূপ ডায়াবেটিক তাদের প্রজনন বছর আগে এবং তার আগের সময়কালে আরও পুরুষত্ব কে প্রভাবিত করতে পারে। ডিএম একাধিক স্তরে পুরুষ প্রজনন ফাংশন কে প্রভাবিত করে যার ফলে শুক্রাণু অন্তঃস্রাব নিয়ন্ত্রণ, শুক্রাণু জেনেসিস নিজেই বা লিঙ্গ উত্থান , বীর্যপাতকে দুর্বল করে তোলে। 

তাই ডায়াবেটিসের প্রতি মনোযোগ দিন এবং এটি নিয়ন্ত্রণে রাখার চেষ্টা করুন। প্রয়োজনে আজই আপনার ডাক্তারের পরামর্শ নিন!।